১৯শে ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং, মঙ্গলবার, ৫ই পৌষ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
  • প্রচ্ছদ » অপরাধ » ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ ও সরাইলের পৃথক দুটি স্থানে ৫ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।



ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ ও সরাইলের পৃথক দুটি স্থানে ৫ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।


প্রকাশিত :২২.১১.২০১৭, ৫:৪৮ অপরাহ্ণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ ও সরাইলের পৃথক দুটি স্থানে ৫ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ ও সরাইলের পৃথক দুটি স্থানে ডাকাতিসহ দুই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত ৫ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গত শনিবার (১৮ নভেম্বর) রাত থেকে বুধবার (২২ নভেম্বর) ভোররাত পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতির সময় লুট করা বিভিন্ন মালামাল উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বুধবার সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. মনিরুজ্জামান ফকির আশুগঞ্জ থানায় এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- আশুগঞ্জ উপজেলার তারুয়া গ্রামের আব্দুর রহমান মিয়ার ছেলে আব্দুল হক, সুলেমান মিয়ার ছেলে আবু তালেব সুমন, বাদল মিয়ার ছেলে সাইফুল ইসলাম, জেলার সরাইল উপজেলার কালিকচ্চ এলাকার লক্কু মিয়ার ছেলে জাকির হোসেন, শাহজাহান মিয়ার ছেলে আলমগীর হোসেন। গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ জানায়, ১৩ নভেম্বর দিবাগত রাতে আশুগঞ্জ থানার বাহাদুরপুর তালশহর রাস্তায় ডাকাতরা একটি পিকআপ ভ্যানে থাকা ৭০ পিস চৌকাঠ দরজা লুট করে নিয়ে যায়। এসময় গাড়িতে থাকা দেওয়ান এন্টার প্রাইজের ম্যানেজার কামাল আহাম্মেদকে হত্যা করে ডাকাতরা। এদিকে ১৮ নভেম্বর ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সরাইল উপজেলার বেড়তলা এলাকা থেকে ডাকাতরা একটি মাছ বোঝাই ট্রাক লুট করে নিয়ে যায়। এসময় মাছের মালিক রফিক মিয়াকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে ডাকাতরা।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সরাইল সার্কেল মো. মনিরুজ্জামান ফকির জানান, লুট হওয়া সকল মালামাল উদ্ধারসহ দুটি ঘটনায় সরাসরি জড়িত ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এছাড়া তাদের সাথে জড়িত আরও যারা আাছে তাদের গ্রেপ্তার করার জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।

তারেক আজিজ/ব্রাহ্মণবাড়িয়া



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
Designed By Linckon