২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং, মঙ্গলবার, ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
  • প্রচ্ছদ » লাইফষ্টাইল » “স্বপ্ন সেটা নয়, যা মানুষ ঘুমিয়ে দেখে, স্বপ্ন সেটাই যা মানুষকে ঘুমাতে দেয় না”



“স্বপ্ন সেটা নয়, যা মানুষ ঘুমিয়ে দেখে, স্বপ্ন সেটাই যা মানুষকে ঘুমাতে দেয় না”


প্রকাশিত :১৭.০৫.২০১৭, ৯:০৭ অপরাহ্ণ

“স্বপ্ন সেটা নয় যা মানুষ
ঘুমিয়ে দেখে
স্বপ্ন সেটাই যা মানুষকে ঘুমাতে দেয় না”
ভারতের প্রয়াত রাস্ট্রপ্রতি এ পি জে
আব্দুল কালামের গুরুত্বপূর্ণ উক্তিটি মূল্যয়ন
সাপেক্ষে কিছু কথা।
কসবা-আখাউড়াতে আষ্মিক কিছু চাটুকারের
আবির্ভাব হয়েছে
যারা নিজেদের স্বার্থ হাসিলে ব্যর্থ হয়ে
ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে স্বপ্ন দেখা শুরু করেছে।
কসবা-আখউড়ার নেতৃত্ব নিয়ে তারাই
ঘুমিয়ে স্বপ্নদেখে:-
যারা বঙ্গন্ধুর আদর্শের যোগ্য অনুসারী
বঙ্গবন্ধু এবং জাতীয় চার নেতা হত্যা
মামলার অন্যতম কৌশলী
মাননীয় আইন মন্ত্রী এড:আনিসুল হক এম,পির
সততা, আদর্শ এবং সাফল্যের বিরুধী।
ঘুমিয়ে স্বপ্ন তারাই দেখে:-
যারা,
মাননীয় আইনমন্ত্রী কর্তৃক
কসবা-আখাউড়াতে এই তিন বৎসরে
২৮০ কোটি টাকার উন্নয়নের বিরুধী।
ঘুমিয়ে স্বপ্ন তারাই দেখে:-
যারা,
কসবা-আখাউড়াতে
এই তিন বৎসরে
মাননীয় আইনমন্ত্রী কর্তৃক
৬৩৪+ বেকার ছেলে/মেয়েদের সরকারি
চাকুরী তথা কর্মসংস্থান ব্যবস্থার বিরুধী।
স্বপ্ন তারাই দেখে :-
যারা,
অবৈধ সুবিধা পাওয়া লক্ষে
মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়ের ছবি দিয়ে
নিজের নামে ফেস্টুন করে সাড়া ঢাকা
শহর লাগিয়েছিল,
এখন অবৈধ সুবিধা না পেয়ে পাগলের
প্রলাপ বকছে।
ঘুমিয়ে স্বপ্ন তারাই দেখে:-
যারা,
কসবা-আখাউড়াতে
চিরতরে মাদক, জুয়া এবং রোড ডাকাতি
বন্ধের বিরুধী।
ঘুমিয়ে স্বপ্ন তারাই দেখে:-
যারা,
কসবা-আখাউড়ার শিক্ষা ব্যবস্থার
উন্নয়ন,অগ্রগতি এবং শিক্ষার হার বৃদ্ধিকরণ
বিরুধী।
ঘুমিয়ে স্বপ্ন তারাই দেখে:-
যারা,
কসবা-আখাউড়ার
বিভিন্ন অফিসিয়াল কার্যক্রমে সচ্ছতা
এবং জবাবদিহিতা নিশ্চিন্ত করার ক্ষেত্র
বিরুধী।
ঘুমিয়ে স্বপ্ন তারাই দেখে:-
যারা,
সরকারি ঠিকাদারি কাজে ২০% কমিশন
বন্ধে এবং থানা থেকে মাসিক হারে অর্থ
হাতিয়ে নেওয়া কার্যক্রম বন্ধের বিরুধী।
স্বপ্ন তারাই দেখে:-
যারা,
দলের নাম ভাঙ্গিয়ে দূর্নীতি আর থানার
দালালি করতে পারেনা।
স্বপ্ন তারাই দেখে :-
যারা দলের নাম ভাঙ্গিয়ে
সমাজিক বিচার ব্যবস্থায় ঘুষের সম্রাজ্য
কায়েম করতে পারেনা।
চাটুকারেরা অবৈধ স্বপ্ন দেখা বন্ধ করুন।
কারন,
কসবা-আখাউড়াতে
অতিতের সকল অপকর্ম বন্ধকরে সততা এবং
আদর্শের মশাল নিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের
সোনার বাংলা বিনির্মাণে যিনি
নিরলসভাবে পরিশ্রম করে যাচ্ছেন,
যিনি দৈনিক ২৪’ঘন্টার যেকোন মূহর্তে
এলাকার সাধারণ মানুষের সাথে
মোবাইলে কথা বলে সমস্যা সমাধান করে
বাংলাদেশে নজিরবিহীন দৃস্টান্ত স্থাপন
করেছেন,
তিনি হলেন
এই জনপদের গৌরব ও অহংকার
কসবা-আখাউড়াবাসীর দীর্ঘ ৬৬’বৎসর
অপেক্ষার ফসল,
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের
আইন,বিচার এবং সংসদ বিষয়ক
মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী এড.আনিসুল
হক এম,পি।
এই এলাকার সাধারণ মানুষ
প্রিয় নেতা এড.আনিসুল হক সাহেবকে
নিয়েই স্বপ্ন দেখে এবং সেই স্বপ্ন ঘুমিয়ে
নয় প্রকাশ্যে,
চাটুকারিতা করে নয়
ভালবাসা দিয়ে।
এই এলাকার অপামর জনসাধারণের
ভালবাসা নিয়ে প্রিয় নেতা
এড.আনিসুল হক সাহেব ছিলেন, আছেন এবং
থাকবেন ইনশাল্লাহ্।

“জয় বাংলা
জয় বঙ্গবন্ধু”

received_1442038259186007

কৃতজ্ঞতায়
এম কে এইচ ইলিয়াস
সিনিয়ার সহ-সভাপতি
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ
কসবা উপজেলা শাখা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
Designed By Linckon