১০ই মার্চ, ২০১৯ ইং, রবিবার, ২৬শে ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



ভিডিও করলেও নার্গিসকে বাঁচাতে আসেনি কেউ


প্রকাশিত :০৪.১০.২০১৬, ৪:০১ অপরাহ্ণ

image-2956ভিডিও করলেও নার্গিসকে বাঁচাতে আসেনি কেউ
মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজে পরীক্ষা দিয়ে বাসায় ফেরার সময় কলেজছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসকে অতর্কিতভাবে চাপতি দিয়ে কুপিয়ে জখম করে সাবেক প্রেমিক বদরুল। জনসম্মুখে এ ঘটনা ঘটালেও নার্গিসকে রক্ষায় এগিয়ে আসেনি কেউ।

পরে শিক্ষার্থীরা তাকে গুরুত্বর আহতাবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। অবস্থার অবনতি হলে গেলরাতে নার্গিসকে ঢাকায় পাঠানো হয়। এখন স্কয়ার হাসপাতালের লাইফসাপোর্টে আছেন নার্গিস। তার অবস্থা আশঙ্কামুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

জানা গেছে, সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসদের বাড়িতেই লজিং থাকতেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের ছাত্র বদরুল আলম। তার সঙ্গে নার্গিসের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু ইদানীং তাদের বনিবনা না হওয়ায় ক্ষুদ্ধ হয়ে বদরুল এ কাণ্ড ঘটায় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এ ঘটনার পরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। যেখানে দেখা যায়, নার্গিসকে চাপাতি দিয়ে কোপাচ্ছে বদরুল। মেয়েটা বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার করছে। অদূরেই অনেক শিক্ষার্থী দাঁড়িয়ে থেকে সেই ঘটনা বন্দী করছে মোবাইলে। কেউ কেউ অবশ্য চিৎকারও করছে। কিন্তু পাষণ্ড বদরুলের হাত থেকে নার্গিসকে বাঁচাতে কেউই এগিয়ে যাননি।

যদিও ঘটনার পরপরই আটক করা হয় নরপশু বদরুলকে। দেয়া হয় গণপিটুনি। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বরুলকে উদ্ধার করে। বদরুল শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক।

এ ব্যাপারে এমসি কলেজের মনোবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর সালেহ আহমদ বললেন, একটি মেয়েকে কুপিয়ে দু’ টুকরো করে ফেলেছে বলে কিছু ছাত্র এসে আমাদের জানায়। সঙ্গে সঙ্গে আমরা পুলিশকে খবর দেই। পরে তারা এসে হামলাকারী যুবককে জনতার কবল থেকে উদ্ধার করে। আমরা ওই মেয়েটিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠাই।

এদিকে হামলাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে এমসি কলেজের ছাত্র-শিক্ষকসহ সর্বস্তরের মানুষ। বিচার চেয়ে সকালে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছেন সিলেট সরকারি মহিলা কলেজ শিক্ষার্থীরা। তারা বদরুলের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন এবং বুধবার জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি দেয়ার ঘোষণা দেন।
নীচে ভিডিওটি দেওয়া হয়েছে ।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
Designed By Linckon